সোমবার | ১৭ জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১৩ জমাদিউস সানি, ১৪৪৩ হিজরি | ৩ মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | শীতকাল | রাত ৪:৫৭

সোমবার | ১৭ জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১৩ জমাদিউস সানি, ১৪৪৩ হিজরি | ৩ মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | শীতকাল | রাত ৪:৫৭

  • ফজর
  • যোহর
  • আসর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যদয়
  • ভোর ৫:২৮ পূর্বাহ্ণ
  • দুপুর ১২:১২ অপরাহ্ণ
  • বিকাল ১৫:৫৬ অপরাহ্ণ
  • সন্ধ্যা ১৭:৩৬ অপরাহ্ণ
  • রাত ১৮:৫৩ অপরাহ্ণ
  • ভোর ৬:৪৩ পূর্বাহ্ণ

নোয়াখালী সদরে ৯ ইউনিয়নে হাতপাখার প্রার্থীদের মনোনয়ন বৈধ ঘোষণা

Share on facebook
Share on twitter
Share on whatsapp
Share on pinterest
Share on telegram

মুহাম্মাদ বেলাল হুসাইন, নোয়াখালী জেলা দক্ষিণ প্রতিনিধি:

আগামী ২৬ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিতব্য ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে নোয়াখালী সদর উপজেলার ৯ টি ইউনিয়নে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের হাতপাখা প্রতীকে চেয়ারম্যান প্রার্থীগণ দলীয় মনোনয়ন পাওয়ার পর গত ১৮ নভেম্বর থেকে ২৫ নভেম্বর পর্যন্ত মনোনয়ন ফরম জমা দেন। অতপর সকল পর্যবেক্ষণের পর আজ ২৯ নভেম্বর উপজেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা ৯ প্রার্থীর মনোনয়ন বৈধ ঘোষণা করেন।

এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন ইসলামি আন্দোলন বাংলাদেশ নোয়াখালী সদর উপজেলার নির্বাচন পরিচালনা কমিটির আহ্বায়ক মাওলানা আবদুল মুকিত।

মনোনয়ন বৈধতা পেয়েছে যাদের-
১ নং চরমটুয়া – হাফেজ মাহমুদুল হাসান
২নং দাদপুর- মাও. আবদুল ওহাব
৪নং কাদির হানিফ- মাও. আনোয়ার হোসাইন
১০ নং অশ্বদিয়া- মাও. আনোয়ার হোসাইন
১১ নং নেয়াজপুর- মাও. ওমর ফারুক
৯ নং কালাদরাপ – মাও. আবুল বাশার
৮ নং এওজবালিয়া- হাফেজ আহম্মদ
১৯ নং পূর্ব চরমটুয়া – মাও. ওমর ফারুক নূরী
২০ নং আন্ডারচর – মু. আবদুল করীম।

প্রার্থীরা জানান নির্বাচন সুস্থ হলে তারা সকালে আশাবাদী।

Share on facebook
Share on twitter
Share on whatsapp
Share on pinterest
Share on telegram

Leave a Comment

  • ফজর
  • যোহর
  • আসর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যদয়
  • ভোর ৫:২৮ পূর্বাহ্ণ
  • দুপুর ১২:১২ অপরাহ্ণ
  • বিকাল ১৫:৫৬ অপরাহ্ণ
  • সন্ধ্যা ১৭:৩৬ অপরাহ্ণ
  • রাত ১৮:৫৩ অপরাহ্ণ
  • ভোর ৬:৪৩ পূর্বাহ্ণ

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

ফের আলোচনায় ড. আফিয়া সিদ্দিকী

টেক্সাসের কোলিভিল শহরের সিনাগগে হামলা হয়েছে। প্রায় ১০ ঘণ্টা দমবন্ধ উৎকণ্ঠায় কাটিয়েছিলেন সিনাগগে থাকা চারজন মানুষ। যুক্তরাষ্ট্রের এই অঙ্গরাজ্যের ওই উপাসনালয় থেকে অবশেষে মুক্ত করা হয়েছে তাদের। নিরাপত্তা বাহিনীর বিশেষ অভিযানের মধ্য দিয়ে অবসান হলো তাদের জিম্মি সংকটের। নিহত হয়েছে বন্দুকধারী। কিন্তু বিভিন্ন মিডিয়ায় ইতোমধ্যে প্রচার হয়ে গেছে জিম্মিকারী ছিলেন

ভারতে সংখ্যালঘু হত্যার ডাক দিয়ে গ্রেপ্তার হলেন ধর্মগুরু

ভারতের উত্তরাখণ্ড রাজ্যের হরিদ্বারে ‘ধর্মীয় সম্মেলনে’ একটি নির্দিষ্ট সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের মানুষকে গণহত্যার ডাক দেওয়ার অভিযোগে