কিশোরগঞ্জের ইটনায় স্বাস্থ্যকর্মীর ওপর দুর্বৃত্তদের নৃশংস হামলা

জাতীয় ভিটামিন এ প্লাস ক্যাম্পেইন ২০২১- এ অংশ নিতে যাওয়ার সময় এক স্বাস্থ্যকর্মীর ওপর নৃশংস হামলা চালিয়েছে দুর্বৃত্তরা। কিশোরগঞ্জের ইটনা থানার বড়িবাড়ি ইউনিয়নে ঘটনাটি ঘটেছে।

হামলার শিকার ওই স্বাস্থ্যকর্মীর নাম শাহাবুর রহমান মীর। বড়িবাড়ী ইউনিয়নের শিমুলবাঁক কমিউনিটি ক্লিনিকে তিনি কর্মরত আছেন। আমি ইটনা উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগের পেশাজীবী সংগঠন ‘ইটনা উপজেলা সিএইচসি এসোসিয়েশনে’র সাংগঠনিক সম্পাদকও তিনি। শাহাবুরের ওপর হামলাকারীরা হলো বড়িবাড়ী ইউনিয়নের পাঁচকাহনীয়া গ্রামের কুখ্যাত সাইকুল বাহিনী।

ভিটামিন এ প্লাস ক্যাম্পেইন ২০২১-এ নিজ কর্মস্থল শিমুলবাঁকের উদ্দেশ্যে রওয়া দেয় শাহাবুর। শিমুলবাঁক পৌঁছার আগে ওপর হামলা চালায় পাঁচকাহনীয়ার কুখ্যাত সাইকুল বাহিনী। সাইকুলের নেতৃত্বে তার তিন ভাই ও স্থানীয় কিছু গুণ্ডা নিয়ে শাহাবুরের ওপর অতির্কিত হামলা চালায়। সেসময় হকিস্টিক ও লাটিসোটা দিয়ে শাহাবুরকে বেশ কয়েকবার আঘাত করে। তার সঙ্গে থাকা অফিসিয়াল যাবতীয় ডকুমেন্টস ও টাকা ছিনিয়ে নেয় দুর্বত্তরা। শাহাবুরের এন্ড্রয়েড ফোনটি একেবারে ভেঙে ঘুরিয়ে দেয়। এ সময় চেচামেচির শব্দ শুনে আশপাশ থেকে লোকজন এসে শাহাবুরকে উদ্ধার করে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যায়।

এই হামলায় শাহাবুরের শরিরের বিভিন্ন জায়গায় মারাত্বকভাবে জখম হয়েছে। বিশেষ করে তার পায়ে ও চোখের পাশের জখমটা বেশ গুরুত্বর। সে বর্তমানে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

‘সাইকুলবাহিনী’র এমন কর্মকাণ্ড নতুন নয়। বেশ কয়েক বছর ধরেই তাদের অত্যাচারে অতিষ্ঠ এলাকাবাসী। এক মাস আগেও ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে এক যুবককে হত্যাচেষ্টা চালায় তারা। এসব বিষয়ে মামলা হয়েছে এবং সেগুলোর সংবাদ ’দৈনিক কালের কণ্ঠ’-’যুগান্তরে’র মতো জাতীয় গণমাধ্যমগুলোতে গুরুত্বসহকারে প্রকাশিতও হয়েছিল।

এছাড়া পাঁচকাহনিয়া বাজারের অবস্থিত রায়হান আহমেদ পল্টুর দোকানঘর ও তার ভাইদের বসতবাড়ি বেশ কয়েক বছর ধরে দখল করে রেখেছে সাইকুল ও তার গোষ্ঠীর লোকজন। সেই বিষয়েও মামলা চলমান। তাদের অত্যাচারে গ্রামবাসী অতিষ্ট।

আরো পড়ুন পোস্ট করেছেন

Comments

লোড হচ্ছে...
শেয়ার হয়েছে