সোমবার | ১৭ জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১৩ জমাদিউস সানি, ১৪৪৩ হিজরি | ৩ মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | শীতকাল | রাত ৪:৫৫

সোমবার | ১৭ জানুয়ারি, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১৩ জমাদিউস সানি, ১৪৪৩ হিজরি | ৩ মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ | শীতকাল | রাত ৪:৫৫

  • ফজর
  • যোহর
  • আসর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যদয়
  • ভোর ৫:২৮ পূর্বাহ্ণ
  • দুপুর ১২:১২ অপরাহ্ণ
  • বিকাল ১৫:৫৬ অপরাহ্ণ
  • সন্ধ্যা ১৭:৩৬ অপরাহ্ণ
  • রাত ১৮:৫৩ অপরাহ্ণ
  • ভোর ৬:৪৩ পূর্বাহ্ণ

বাংলার পল্লী দাদা যখন পদচুম্বন করতে অভ্যস্ত–Numan Reader

Share on facebook
Share on twitter
Share on whatsapp
Share on pinterest
Share on telegram

বাংলার পল্লী দাদা, দিল্লীর মদদপুষ্ট বঙ্গদিদির পদচুম্বন করতে অভ্যস্ত জানেন তো! যে কিনা আলেম উলামাদেরকে প্রশ্নবিদ্ধ করেছে গোটা বিশ্বদরবারে৷

আমি মনে করি সে রাজনীতির ক্ষেত্রে একেবারেই বাচ্চা। তা নাহলে এই কথাগুলো মিডিয়ার সামনে না বলে‚ হেফাজতের নেতাদের সাথে ঘরোয়া পরিবেশে বলতে পারতো। কিন্তু আসল কথা হলো কি জানেন, সে যে নিজেও মাঝে মধ্যে বঙ্গদিদির কদমবুচি দেয়‚ সেটাকে আড়াল করার জন্যই এই কূ-কালাম ছুড়ে দিয়েছে৷ যাইহোক এই কারণে নূরুল হক নূর সেদিন বড় একটা জনসমর্থন হারালো বামদের সাথে কাজ করতে যেয়ে, এটাই স্বাভাবিক৷

বামরা বেশি চিল্লাফাল্লা করে বাট একাত্তরের পর থেকে নিয়ে আজ অবধি পর্যন্ত তাদের অস্তিত্ব প্রতিষ্ঠিত করতে পারে নি‚ অস্তিত্ব প্রতিষ্ঠিত করবেইবা কিভাবে! অস্তিত্ব প্রতিষ্ঠিত করলে তো আর নির্বাচনের সময় বেচা বিক্রি হওয়া যাবে না৷

‘এদের সত্য নিষ্ঠ জবান কোনটা? আপনার বুঝতে অনেক কষ্ট হয়ে যাবে কারণ কিভাবে! কখন! কোথায়! কোন দিক থেকে ইসলামিস্টকে ঘায়েল করবে‚ সেই চিন্তায় দিনরাত পার করে তারা৷

নূরুল হক নূর যা বলেছে পুরো বক্তব্যই ভুল ছিলো। তার জন্য উচিৎ ছিলো এই কথা বলা যে‚ সাবেক অস্বয়ংসম্পূর্ণ প্রসিডেন্ট বেগম খালেদা জিয়া যেহেতু ক্ষমতায় থাকাকালীন সময় জনগণের উপর হামলা‚ মামলা‚ দমন-পীড়ন‚ হুমকি‚ ধামকি‚ খুণগুম করেছিল‚ ফলে শেষ পর্যন্ত গদিতে টিকতে না পেরে ক্ষমতা ছেড়ে দিয়ে আজ মাজলুম হয়েছে।

কাজেই কারোর জন্য উচিৎ হবে না যে খালেদা জিয়ার পক্ষপাতি গ্রহণ করে তাকে মুক্তির জন্য পাঞ্জা লড়া। কারণ এটা স্বতঃসিদ্ধ কথা যে কেউ যদি জুলুম করার পরে মাজলুম হয় তাহলে তার মঙ্গল কামনায় অংশগ্রহণ করে, তার জন্য সুস্থতা কামনা করে, তার পক্ষে দাড়িয়ে আবার জুলুমের স্থানে ফিরিয়ে নিয়ে যাওয়া কোনো বুদ্ধিমানের কাজ হবে না। কারণ সে সুস্থ হয়ে ক্ষমতায় বসলে আবার জুলুম করবে। বদলাবদলির রাজনীতি করবে অর্থাৎ অতীতে ক্ষমাচ্যুত হওয়া দিন গুলোও মাত্র কয়েক বছরের মধ্যে পুষিয়ে নিয়ার চেষ্টায় থাকবে, ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া, জুলুম পাল্টা জুলুমের রাজনীতি করবে‚ আমরা তা আর দেখতে চাই না৷ আমরা নতুন কিছু দেখতে চাই৷ কাজেই পূর্বের স্থানে ফিরিয়ে দিয়ে জুলুম করতে দেওয়া ঠিক হবে না|স্পষ্টভাষী হলে এমন হওয়া উচিৎ| গোল আলু হওয়া মোটেও ঠিক না|

নূরু ভাই! আপনি হিফাজতে ইসলামের আলেমরা সরকারের আমলাদের সাথে বসেছে এটা দেখলেন কিন্তু বিএনপি সরকারের সাথে বসেছে এটা দেখেন নি? আপনি হিফাজতের আন্দোলনে রক্তাক্ত পরিবেশ দেখেছেন কিন্তু বিএনপির আন্দোলনে তা দেখেন নি? আপনি হিফাজতি আলেমদের কারাগারে দেখেছেন কিন্তু বস্তুবাদি বিএনপি নেতাদের কারাগারে পান নি?? বিবেকহীনতার বহিঃপ্রকাশ ঘটালেন সেদিনের বামপন্থীদের অশুভ সম্মেলনে৷

আরে হিফাজতে ইসলাম মন্ত্রীর সাথে বসেছেই তো কারাগারে থাকা আলেমদের মুক্তির জন্য‚ যাতে সকলকে দ্রুত মুক্ত করিয়ে আনতে পারে৷ আপনি তা মোটেও বোঝিন নি? আর শোনেন বায়েজিদ খান পন্নির জামাই সেলিমের মতো ধাপ্পাবাজি মার্কা কথা জনগণ আর খায় না৷

সরকার বিনাভোটে নির্বাচিত বলে কি বিএনপিরাও তাদের নেত্রী খালেদার জন্য মুক্তি চাইতে সরকারের সাথে বৈঠক করছে না?? আপনাদের গণঅধিকার পরিষদের যারা জেলে যায়, তাদেরকে মুক্ত করার জন্য আপনারাও কি ভোট বিহীন গদিতে বসা অবৈধ সরকারের সাথে বসেন না? অথচ আপনাকে আমরা এই স্বৈরাচারী শাসকের কদম বুচি করতে দেখেছি৷ তা স্বত্বেও আপনি এ কেমন বক্তব্য দিলেন ভাই হ্যাঁ! বক্তব্য প্রত্যাহার করুন৷

থেকে আরো পড়ুন

Share on facebook
Share on twitter
Share on whatsapp
Share on pinterest
Share on telegram

Leave a Comment

  • ফজর
  • যোহর
  • আসর
  • মাগরিব
  • এশা
  • সূর্যদয়
  • ভোর ৫:২৮ পূর্বাহ্ণ
  • দুপুর ১২:১২ অপরাহ্ণ
  • বিকাল ১৫:৫৬ অপরাহ্ণ
  • সন্ধ্যা ১৭:৩৬ অপরাহ্ণ
  • রাত ১৮:৫৩ অপরাহ্ণ
  • ভোর ৬:৪৩ পূর্বাহ্ণ

এ সম্পর্কিত আরও পড়ুন

ফের আলোচনায় ড. আফিয়া সিদ্দিকী

টেক্সাসের কোলিভিল শহরের সিনাগগে হামলা হয়েছে। প্রায় ১০ ঘণ্টা দমবন্ধ উৎকণ্ঠায় কাটিয়েছিলেন সিনাগগে থাকা চারজন মানুষ। যুক্তরাষ্ট্রের এই অঙ্গরাজ্যের ওই উপাসনালয় থেকে অবশেষে মুক্ত করা হয়েছে তাদের। নিরাপত্তা বাহিনীর বিশেষ অভিযানের মধ্য দিয়ে অবসান হলো তাদের জিম্মি সংকটের। নিহত হয়েছে বন্দুকধারী। কিন্তু বিভিন্ন মিডিয়ায় ইতোমধ্যে প্রচার হয়ে গেছে জিম্মিকারী ছিলেন

ভারতে সংখ্যালঘু হত্যার ডাক দিয়ে গ্রেপ্তার হলেন ধর্মগুরু

ভারতের উত্তরাখণ্ড রাজ্যের হরিদ্বারে ‘ধর্মীয় সম্মেলনে’ একটি নির্দিষ্ট সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের মানুষকে গণহত্যার ডাক দেওয়ার অভিযোগে