‘মৌলবাদের কাছে আত্মসমর্পণ করা উচিত নয়’, সাকিবের পুজো উদ্বোধন বিতর্কে পশ্চিমবঙ্গের মন্ত্রী

কলকাতায় একটি কালীপুজোর উদ্বোধন করায় বাংলাদেশের ক্রিকেটার সাকিব আল হাসানকে প্রাণনাশের হুমকি দেওয়ার অভিযোগে একজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

বুধবার থেকেই সাকিবের নিরাপত্তাও বাড়ানো হয়েছে। তাঁর অনুশীলনের সময়ও সঙ্গে ছিল সশস্ত্র পুলিশ। এই পরিস্থিতিতে এবার মুখ খুললেন পশ্চিমবঙ্গের মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম।

এ প্রসঙ্গে তিনি স্পষ্ট করে কিছু না বললেও তার কথায়, ‘যেকোনো মৌলবাদই ভয়ংকর। কোনো মৌলবাদের কাছে আত্মসমর্পণ করা উচিত নয়। আমার জানা নেই ঘটনাটি সম্পর্কে। তবে এ ধরনের ঘটনা না হওয়াই বাঞ্ছনীয়।’

এদিন এ রাজ্যে বিজেপির রণকৌশল প্রসঙ্গেও ফিরহাদ বলেন, ‘মিডিয়া এ নিয়ে প্রচার করছে বেশি। অনেক পঞ্চপান্ডব এসেছে। অনেক হনুমান এসেছে। তাতে কিছু যায় আসে না, ওরা আসবে যাবে। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ছিলেন, আছেন, থাকবেন।’ ছটপুজোয় আদালতের নির্দেশ প্রসঙ্গেও ফিরহাদের প্রতিক্রিয়া, ‘গত বছর ভোট ছিল না, তবু আমরা ছটপুজোর পক্ষে ছিলাম। এবছর কলকাতার উত্তরে দক্ষিণে নানারকম বিকল্প ব্যবস্থা করা হয়েছে। আদালতের নির্দেশ মেনে ব্যবস্থা করবে প্রশাসন। আমি ছোটবেলা থেকে কালী পুজো করি কি ভোটের জন্য? এখন দুর্গা পুজো করি এত বড় সেটা কি ভোটের জন্য?’

এদিকে আরেক টুইটারে একইভাবে সাকিবের সমালোচনা করেছেন ভারতীয় অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাউত। কঙ্গনা তার টুইটার অ্যাকাউন্ট থেকে দেশবাসীর কাছে সাকিবের মাফ চাওয়ার খবরটি শেয়ার করে ক্যাপশনে লেখেন, ‘কেন মন্দিরকে এত ভয় পাও সাকিব? এর পেছনে কি বিশেষ কোনো কারণ রয়েছে? আমি তো সারাজীবন মসজিদে বসে থাকলেও, আমার মন থেকে কেউ ‘রাম’ শব্দটি মুছে ফেলতে পারবে না।’

তিনি লিখেছেন, ‘নিজেদের প্রার্থনায় বিশ্বাস নেই, নাকি হিন্দুদের অতীত তোমাদের মন্দিরের প্রতি আকর্ষিত করেছে? নিজেকে প্রশ্ন করো।’

আরো পড়ুন পোস্ট করেছেন

Comments

লোড হচ্ছে...
শেয়ার হয়েছে